মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

 

১) ভূমি উন্নয়ন কর (কৃষি ও অকৃষি)আদায়: সরকার কর্তৃক নির্ধারিত নীতি মালা অনুসারে।

২) পেরী-ফেরী ভূক্ত বাজারের অস্থায়ী একসনা লীজ নবায়ন:প্রকৃত ব্যবসায়ী ট্রেড লাইসেন্স থাকতে হবে। নীতিমালা অনুযায়ী প্রস্তাব উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রেরণ করা হয়। ইউনিয়ন ভূমি অফিসের প্রতিবেদনের আলোকে লীজের শর্তভঙ্গ না করলে সরকার কর্তৃক নির্ধারিত হারে লীজমানি গ্রহণপূর্বক নবায়ণ করা হয় এবং ডিসিআর প্রদান করা হয়।

৩) অর্পিত সম্পত্তির নবায়ন:  ইউনিয়ন ভূমি অফিসের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে লীজের শর্তভঙ্গ না করলে সরকারী নীতি মালার আলোকে লীজমানি গ্রহণপূর্বক নবায়ণ করা হয় এবং ডিসিআর প্রদান করা হয়।

৪)  ভিপি পুকুর, জলাশয়, ফলের বাগান ইজারা:

  নীতিমালা অনুযায়ী নিলাম কমিটির মাধ্যমে প্রকাশ্যে তিনসনা মেয়াদী ইজারা প্রদান করা হয়।

৫)  কৃষি খাস জমি বন্দোবস্ত: ১৯৯৭ সনের কৃষিখাস জমি বন্দোবস্ত নীতিমালা অনুযায়ী উপজেলা কৃষি খাস জমি ব্যবস্থাপনা ও বন্দোবস্ত কমিটির মাধ্যমে প্রস্তাব জেলা কৃষি খাস জমি ব্যবস্থাপনা ও বন্দোবস্ত কমিটির নিকট প্রেরণ করা হয়। বিস্তারিত তথ্যাদি উপজেলা ভূমি অফিসে পাওয়া যায়। অনুমোদিত হলে পরবর্তীতে নীতি মালার আলোকে কার্যক্রম গৃহীত হয়।

৬) অকৃষি খাস জমি বন্দোবস্ত:  ১৯৯৫সালের অকৃষি খাস জমি ব্যবস্থাপনা ও বন্দোবস্ত নীতিমালা অনুযায়ী সালামী ধার্যে দীর্ঘ মেয়াদী বন্দোবস্ত প্রস্তাব উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রেরণ করা হয়। অনুমোদিত হলে পরবর্তীতে নীতি মালার আলোকে কার্যক্রম গৃহীত হয়। 

৭)  নামজারী ও জমাভাগের সার্টিফাইড কপি প্রদান: উপজেলা ভূমি অফিস হতে সার্টিফাইড কপি প্রদান করা হয় । পাঁচ টাকার কোর্ট ফি সংযুক্ত করে সহকারী কমিশনার (ভূমি)  বরাবর আবেদন করতে হয়। আবেদনের চাহিত পত্র পাওয়ার পর সরকারী ফি ধার্যে  উপজেলা ভূমি অফিস হতে সরবরাহ করা হয়।

৮)  সরকারী ভূমি হতে  অবৈধ দখল পুনরুদ্ধার:

সরকারী নীতিমালা অনুযায়ী পদক্ষক্ষপ গ্রহন করা হয়।

৯) রেন্ট সার্টিফিকেট মামলা:           পাবলিক ডিমান্ড রিকভারি এ্যালট ১৯১৩ এর আলোকে বকেয়া সরকারী পাওনা (ভূমি উন্নয়ন কর ও অন্যান্য সরকারী ফি)

১০)  তথ্য, পরামর্শ, অভিযোগ: উপজেলা ভূমি অফিসের তথ্য, পরামর্শ, অভিযোগ সহায়তা সেলে রক্ষক্ষত অভিযোগ রেজিস্টারে অভিযোগ লিপিবদ্ধ করুন। ভূমি সংক্রান্ত কোন সমস্যা, তথ্য, পরামর্শ, অভিযোগ এর জন্য সরাসরি সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন।

১১) নামজারীজমাখারিজ: মিউটেশন (নামজারী) মিউটেশনের জন্য সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর দরখাসত্ম দাখিল করতে হবে।

 

মিউটেশনের আবেদনের সাথে নিম্ন বর্ণিত কাগজপত্র দাখিল করতে হবে।

 

(ক) প্রযোজ্য ক্ষক্ষত্রেঃ  ১। ক্রয় ও প্রয়োজনীয় বায়া দলিলের কপি। ২। ওয়ারিশ সনদপত্র  ৩। হেবা দলিলের কপি এবং সকল রেকর্ড বা পর্চা খতিয়ানের সার্টি ফাইড কপি। ৪। সর্বশেষ জরিপের পর থেকে বায়া /পিট দলিল এর সার্টি ফাইড/ফটোকপি (প্রযোজ্য ক্ষক্ষত্রে)।

 

৫। ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের দাখিলা ।  ৬। তফফিল বর্ণিত চৌহদ্দিসহ কলমি নকসা ০১ কপি।

 

(খ) মিউটেশনের খরচঃ

 

(ক) আবেদন বাবদ কোর্ট ফি = ৫/- (পাঁচ টাকা)

 

(খ) নোটিশ জারী ফি = ২/- (দুই টাকা) (অনাধিক ৪ জনের জন্য ) চার জনের অধিক প্রতিজনের জন্য আরো ০.৫০ টাকা হিসাবে আদায় করা হবে।

 

(গ) রেকর্ড সংশোধন ফি = ২০০/- (দুইশত) টাকা।

 

(ঘ) প্রতিকপি মিউটেশন খতিয়ান ফি = ৪৩/- (তেতালিশ) টাকা।

 

সর্বমোট= ২৫০/- (দুইশত পঞ্চাশ) টাকা + চার জনের অধিক হলে নোটিশ জারী ফি প্রতিজনের জন্য আরো ০.৫০ টাকা হিসেবে আদায় করা হবে।

 

বিঃদ্রঃদরখাস্ত জমা দেওয়ার দিন থেকে ৪৫ দিনের মধ্যে মিউটেশন কেস নিষ্পত্তি না হলে এবং উলেখিত খরচের অতিরিক্ত ফি কেউ দাবী করলে সহকারী কমিশনার (ভূমি)/ উপজেলা নির্বাহী অফিসার/রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর/অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) অথবা জেলা প্রশাসকের সাথে যোগাযোগ করুন।